রিভিউ - ভালোবাসার গল্প

"ভালবাসা তারপর দিতে পারে গত বর্ষার সুবাস,
বহুদিন পরে তারাদের আলো শূন্য আধার আকাশ!"

মানুষ প্রেমে পড়ে বহুবার। কিন্তু ভালবাসে একবার। আর ৮০% লোকের ক্ষেত্রে সেটি থাকে প্রথম ভালবাসা।
কেমন হয় সে প্রথম ভালবাসা??

অবুঝ মনে ধীরে ধীরে ফুটতে থাকে প্রেমের কুড়ি।একটু খানি আকুলতা আর বাড়তে থাকা ব্যকুলতা দিয়ে ধীরে ধীরে সে কুড়ি ফুল হয়ে ফুটে। অনেকভাবে জানাতে চায় মনের মানুষটিকে জমে থাকা সকল অনুভব। জানাতে চায় মনের মাঝে বিন্দু বিন্দু করে গড়ে উঠা সিন্ধু সমান ভালবাসার কথা। কিন্তু ভয়,জড়তা আর অনভিজ্ঞতা।এ তিনের মিশেলে বলতে পারে না।সমাজ কি ভাবে আর লোকে কি বলে এমন ভাবনাও মনের মাঝে এনে দেয় ভয়।।

হ্যা!প্রায় ক্ষেত্রে ভালবাসার গল্পটা এমনই হয়।যা হয় জীবনের প্রথম অনুভব।যা হয় জীবনের প্রথম কোন অজানা অনুভূতি। পরিণতি জানে না কেউ। তবুও এক মায়ার টানে এগিয়ে যায় নিয়তির দিকে।
কোন এক বিখ্যাত লেখক বলেছিলেন, "জীবনের সঠিক প্রেমটা আসে ভুল সময়ে ভুল মানুষের সাথে!"
.
নাটকের নাম 'ভালবাসার গল্প'।
নাম শোনেই বুঝা যায় এতে থ্রিল নেই,নেই কোন শিক্ষনীয় বার্তা।আছে ভালবাসা নিয়ে নির্মিত সুন্দর কিছু।

আজকের এ সময়ে এসে প্রেমের নাটক বললেই বুঝায়, দুই কপোত কপোতি থাকবে।যা ন্যাকামিতে ছেয়ে যায় প্রায় সময়। ন্যাকামি করতে গিয়ে মূল গল্প থেকে সরে যায় নাটকের মোটিভ। এক রকম দেখাতে গিয়ে মূল বিষয়টাই হয়ে যায় অন্য রকম।
সেজন্য প্রেমের গল্পে নির্মিত নাটক দেখা ছেড়েছি বহু আগে।

কিন্তু অনেকগুলো পজিটিভ রিভিউ দেখে আমারো ইচ্ছে জাগলো বহুদিন পর দেখি একটা ভালবাসার গল্প।সময় নষ্ট হয়নি। এম্বি আর সময় দুটোই উশুল। গল্পে কোন অসাধারণত্ব আনার জোর প্রচেষ্টা নেই,ওভার এক্টিং এর কোন স্পর্শ নেই। খুব সাধারণ ভাবে যত্নে গড়ে যেন নির্মিত কাজটি।যেখানে কিছু বাড়ানো যেমন ভুল হত,কিছু ছেড়ে দেয়াও হয়ে যেত ভুল।

রহমান স্যার কলেজ শিক্ষক। বেশ রগচটা শিক্ষকই বলা যায় তাকে।তবে তিনি টিউশন করাতে চান না। কিন্তু তার ব্যক্তিত্ববোধ সহ অনেক কিছুতে মোহগ্রস্থ হয়ে তার ছাত্রী বৃষ্টির মনে জন্ম নেয় প্রেমের ফুল।।ক্যড়ি অবস্থাতে নানান ভাবে জানাতে চায় সে তার ভালবাসার কথা। কিন্তু কিছুতেই সাহস করে উঠতে পারেনা।
এভাবেই এগিয়ে যায় নাটকের গল্প।

গল্পটা সাধারণ ছিল। কিন্তু সব মিলে যেন অসাধারণ এক কাজে রূপ নিয়েছে।স্পেশালি শেষ দিকে গিয়ে যেভাবে বদলে যায় ইমোশন সহ সমস্ত কিছু।একটা দীর্ঘশ্বাস বেরিয়ে আসে মনের অজান্তে বুক ছিড়ে।যেন রহমান স্যার আর বৃষ্টির মাঝে দাড়িয়ে রইবে দর্শক নিজে।দুজনের অনুভূতি এসে ছুয়ে যাবে অজান্তে। কিছু সময় নীরব কেটে যাবে।কিছু সময় নির্বাক কেটে যাবে।
যারা নাটক দেখে কাদেন,তাদের গাল বেয়ে কয়েক ফোটা অশ্রুও ঝড়ে পড়তে পারে।।

ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক যেন গল্পের মাঝে যোগ করে দেয় নতুন মাত্রা। জোর করে এতে ইমোশন ধরে টান মারা হয়নি।সাবলীল ভাবে ইমোশন ছুয়ে যাওয়া হয়েছে।এটাই একজন পরিচালকের,একজন নির্মাতার তথা অভিনেতা-অভিনেত্রীদের স্বার্থকতা।এ ঈদে আমার দেখা নাটকগুলোর মাঝে এখন পর্যন্ত এটি এগিয়ে।।

নাটকঃ ভালবাসার গল্প।
অভিনয়েঃ তাহসান খান,তাসনুভা তিশা।
পরিচালনায়ঃ মাবরুর রশীদ বান্নাহ।

ও হ্যা!একটা কথা না বললেই নয়। তাহসান যেভাবে নিজের অভিনয়ে পরিনতির ছোয়া এনেছেন তা সত্যিই অনবদ্য। একটা সময় আমি তার নাটক দেখতাম না খুব। এক ঘেয়েমি লাগতো। কিন্তু এখন তার অভিনয় গুলো হৃদয় ছুয়ে যায়। তাকে আলাদাভাবে একটা ধন্যবাদ রইলো আমার তরফ থেকে।
সংগ্রহীত ঃ আকলাকুজ্জামান সাকিব

Post a Comment

0 Comments