রক্তদানের অভিশাপ ।।। প্রথম পর্ব।

আপনি যদি আপনার বিবেকের কাছে হেরে  যান,তাহলে আপনি অসৎ।


      আজকে আমরা দু জনে আপনাদেরকে এমন একটি গল্প বলবো যেই গল্প শুনে আপনাদের বিবেক কে জাগিয়ে তুলতে পারে।  
একটি ছেলে প্রত্যান্ত গ্রামে বসবাস করে। সে গ্রামের বিভিন্ন  শ্রেণীর সহজ সরল মানুষদের  দেখে মানব প্রেমী হয়ে ওঠে।   সে বিভিন্ন রকমের সামাজিক কাজ  মানুষের উপকারে ব্যাস্ত।  সে এক দিন রক্ত দিয়ে বাড়িতে ফিরে , আর তখনতার পরিবার তাকে বিভিন্ন ভাবে বকাঝকা করে । 
কারণ তাদের ধারণা রক্ত দিলে মানুষ বেচে থাকে না, রক্ত দিলে শরীরের ক্ষতি হয় । এসব ভ্রান্তধারণা আজও গ্রামের মানুষের  মধ্যে আছে এটা ভেবে সে নিজেই হতবাক হয়। 


                

  ছেলেটির কাছে হঠাৎ একদিন ফোন আসে , বলে  তোর রহিম চাচার ছেলের রক্ত লাগবে সে উপজেলা মেডিকেলে    ভর্তি ।  তখন ছেলেটি রক্তের সন্ধান শুরু করে  তার এক হিন্দু বন্ধুর রক্তের গ্রুপের সাথে  মিলে যায়,  সে দিতে রাজি হয় তখন তাকে হাসপাতালে রক্ত দেওয়ার জন্য  নেওয়া হচ্ছে। এমন সময় হঠাৎ রহিম চাচা বলে প্রয়োজনে ছেলে কে মেরে ফেলবো  হিন্দুর রক্ত নিবো না।  কারণ রহিম চাচা ধর্ম ভীরু।  তার চিন্তা ধারা হিন্দু মানুষের রক্ত  মুসলমান এর শরীরে গেলে সে বেহেশতে যাবে না এমন ভ্রান্ত ধারণা   এখনো গ্রামে প্রচলিত আছে।
হিন্দু ছেলেটার মন খারাপ হয়ে  গেল কারণ এর আগে কখনো সে   এমন পরিস্থিতির স্বীকার হয়  নি।

   
বর্তমান সময়ে এসেও আমরা কুসংস্কার থেকে বের হতে পারি নি এটা আমাদের  সমাজের দোষ নয়,  এটা আমাদের নিজেদের নিচু মন মানসিক।      
চলবে.............

লেখক পরচিতিঃ- 
মোঃ রাসেল হোসাইন
ঠিকানা ঃ কাহালু, বগুড়া
যোগাযোঃ ফোনঃ 01764795556
          ইমেইল ঃmdraselhosain795556@gmail.com

Post a Comment

0 Comments